মঙ্গলবার, অক্টোবর ২২, ২০১৯

খাবারের পুষ্টিগুণ ধরে রাখুন

  • রিপোটারের নাম
  • ২০১৯-০১-২২ ০৮:১৩:৪৮
image

ডিম পোচ কার না ভালো লাগে। রান্নার দারুণ এক পদ্ধতি ‘পোচিং’। পুষ্টি বিশেষজ্ঞদের মতে, মাছ, মাংস, ডিম এবং প্রয়োজনে ফল রান্নার জন্য এ পদ্ধতি সবচেয়ে ভালো। এসব খাবারের কোনো ধরনের গুণ নষ্ট হয় না। অল্প আঁচেই পোচ করা যায়। ফলে উপাদানগুলো মোটেও তাদের গুণ হারায় না।ব্লেন্ডশাক ও ফলের জুস অনেকেরই পছন্দের খাবার। কিন্তু এতে খাবারের ফাইবার নষ্ট হয়। আর ফলের জুস আসলে প্রাকৃতিক চিনিপূর্ণ পানীয় ছাড়া আর কিছুই নয়। কিন্তু যদি ব্লেন্ড করেন, তো ফল বা শাকপাতা ক্ষুদ্র অংশে ভেঙে যাবে। কিন্তু ফাইবার নষ্ট হবে না। এ পদ্ধতিতে খাবার একেবারে পানীয় হয় না। তবে বেশ পাতলা হয় এবং খেতেও দারুণ সুস্বাদু।খোসা রাখাঅধিকাংশ ফল ও সবজির খোসা ভিটামিন, খনিজ ও অ্যান্টি-অক্সিডেন্টে পূর্ণ। তাই যদি খোসা ছাড়িয়ে রান্না বা ব্লেন্ড করেন তো পুষ্টি উপাদানের অনেকটুকুই হারালেন। তাই বিশেষজ্ঞরা সবজি বা ফল বা অন্য কিছু খোসাসহ রান্না করতে বলেন। সবচেয়ে ভালো হয় খোসাসহ সিদ্ধ করে নিলে। তবে এর আগে খুব ভালো করে ধুয়ে নিতে হবে, যেন খোসায় ময়লা না থাকে।সিদ্ধশাকসবজি ও অন্যান্য খাবার সিদ্ধ করার পর সেই পানিটা ফেলে দেবেন না। সেটি রান্নার কাজে ব্যবহার করবেন। কিংবা এই পানি স্যুপ বা অন্য কোনো রেসিপিতে ব্যবহার করুন। সিদ্ধ করার পর খাবারের অনেকটা পুষ্টি চলে যায় পানিতে। তাই এটি ফেলে দেওয়া বোকামি। এ কারণে পুষ্টিবিদরা বলেন, প্রেসার কুকারে রান্না স্বাস্থ্যের জন্য সবচেয়ে ভালো।


এ জাতীয় আরো খবর